ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করার নিয়ম ২০২৪ | Download Voter ID Card

ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করার নিয়ম, কিভাবে ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করব, ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করার অ্যাপ সহ ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করার সকল উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন আজকের পোস্টে। আজকের পোস্টে আমরা আলোচনা করব কিভাবে ঘরে বসে অনলাইনের মাধ্যমে আপনার হাতে থাকা স্মার্ট ফোন অথবা কম্পিউটার ব্যবহার করে ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করবেন। 

 

ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড

অনলাইনে ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করার জন্য যেকোন ব্রাউজার থেকে চলে আসুন এই ঠিকানায়: https://nidw.gov.bd/। এটি হলো বাংলাদেশ সরকারের ভোটার/NID সম্পর্কিত ওয়েবসাইট। এখন ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করার জন্য মেনুবার থেকে ‘NID online services’ অপশন থেকে জাতীয় পরিচয় পত্র নম্বর/ফ্রম নম্বর, জন্ম তারিখ (দিন/মাস/বছর), বর্তমান ঠিকানা ও স্থায়ী ঠিকানা উল্লেখ পূর্বক ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করা যাবে। 

 

ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করার সম্পূর্ণ নিয়ম

ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করার জন্য সর্বপ্রথম আপনি আপনার মোবাইল কিংবা কম্পিউটারে ডাটা সংযোগ চালু করুন। তারপর মোবাইল কিংবা কম্পিউটারে থাকা যেকোনো একটি ব্রাউজার ওপেন করুন এবং সার্চ অপশনে NID.bd লিখে সার্চ করুন। এখন সার্চ রেজাল্টে আসা প্রথম ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন করুন। তাহলে বাম পাশের মেনু অপশনে দুটি অপশন দেখতে পাবেন যেমন:

  • NID online service 
  • Smart card status 

এখন আপনি ‘NID online services’ অপশনে ক্লিক করুন। তাহলে আপনার সামনে একটি পেইজ চলে আসবে সেখান থেকে ‘রেজিস্টার করুন’ অপশনে ক্লিক করুন। তারপর আপনাকে পরবর্তী অপশন নিয়ে যাবে। সেখানে ‘অ্যাকাউন্ট রেজিস্ট্রির’ নামে একটি অপশন দেখতে পাবেন এবং তার নিচে অনেকগুলো অপশন দেখতে পাবেন। যেমন:

  • জাতীয় পরিচয় পত্র নম্বর/ফ্রম নম্বর 
  • জন্ম তারিখ (দিন/মাস/বছর)

ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করার নিয়ম

এখন উপরে উল্লেখিত সকল তথ্য সঠিকভাবে পূরণ করে ‘সাবমিট’ অপশনে ক্লিক করুন। তারপরে নিচে ‘বর্তমান ঠিকানা’ অপশন গুলো পূরণ করুন। যেমন:

  • বিভাগ 
  • জেলা 
  • উপজেলা 

এবারে উপরে উল্লেখিত অপশন গুলো সঠিকভাবে পূরণ করুন। তারপরে ‘স্থায়ী ঠিকানা’ অপশনে ক্লিক করে আপনার ‘স্থায়ী ঠিকানা সিলেক্ট করুন। যেমন:

  • বিভাগ 
  • জেলা 
  • উপজেলা 

এখন উপরে উল্লেখিত সকল তথ্য সঠিকভাবে পূরণ করা হয়ে গেলে নিচে থাকা ‘পরবর্তী’ অপশনে ক্লিক করুন। তাহলে আপনাকে পরবর্তী অপশন নিয়ে যাবে। সেখানে সেখানে দুটি অপশন দেখতে পাবেন। যেমন:

  • বার্তা পাঠান এবং 
  • মোবাইল পরিবর্তন 

Voter ID card download

এখন এখানে আপনারা যদি মোবাইল নাম্বার শো করে তাহলে বার্তা পাঠান অপশনে ক্লিক করুন। আর আপনি যদি ‘মোবাইল নম্বর’ পরিবর্তন করতে চান তাহলে ‘মোবাইল পরিবর্তন’ অপশনে ক্লিক করে মোবাইল নম্বর পরিবর্তন করতে নিন। উদাহরণস্বরপ, আপনি ‘মোবাইল পরিবর্তন’ অপশনে ক্লিক করলেন। এখন আপনার মোবাইল নম্বরটি বসিয়ে ‘বার্তা পাঠান’ অপশনে ক্লিক করুন। তাহলে আপনার মোবাইল নম্বরে একটি ভেরিফিকেশন কোড/OTP যাবে সেটি বসিয়ে ‘বহাল’ অপশনে ক্লিক করুন।

আরোও পড়ুন: ভোটার আইডি কার্ডের ভুল সংশোধন করার নিয়ম

তাহলে আপনাকে পরবর্তী অপশনে নিয়ে যাবে সেখানে ‘অ্যাকাউন্ট রেজিস্ট্রেশন’ নামে একটি অপশন দেখতে পাবেন এবং প্রক্রিয়া শেষ করতে হলে নিচে তিনটি বিষয়ে উপর লক্ষ্য রাখতে হবে। যেমন:

  • আপনার মোবাইল এ NID Wallet এপ্লিকেশনটি ইন্সটল করুন 
  • লাল বাটন-এ ট্যাপ করে পরবর্তী ধাপ অনুসরণ করুন 
  • যাচাই প্রক্রিয়াটি শেষ হলে আপনাকে পরবর্তী ধাপে নিয়ে যাবে। 

এখন লাল বাটনে থাকা Tap to open NID Wallet অপশনে ক্লিক করুন। তাহলে আপনাকে গুগল প্লেস্টোরে নিয়ে যাবে। সেখান থেকে NID WALLET অ্যাপটি ইন্সটল করে নিন এবং ওপেন করুন।

ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করার নিয়ম

এখন শুরুতে আপনার ভাষা নির্বাচন করুন। তারপর Start Facescan অপশনে ক্লিক করুন। তাহলে আপনার ফোনের ক্যামরা চালু হয়ে যাবে। এখন নিচের দেখানো কাটুন চিত্রের ন্যায় আপনার মুখকে নাড়াছাড়া করুন। তাহলে ফেস স্ক্যান সম্পন্ন হয়ে যাবে। এখন ব্যাকে ক্লিক করে আবারও ওয়েবসাইটে ফিরে আসুন। তাহলে আপনার নাম ও NID কার্ড দেখতে পাবেন। 

ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করার নিয়ম
এখন নিচে থেকে ‘পাসওয়ার্ড সেট’ করুন অপশনে ক্লিক করে একটি পাসওয়ার্ড সেট করে নিন। এতে করে পরবর্তীতে কোন কিছু কারা ছাড়াই সুধু মাত্র পাসওয়ার্ড দিয়ে ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করতে পারবেন। 

আরোও পড়ুন: জন্ম নিবন্ধন ভুল সংশোধন করার নিয়ম

পাসওয়ার্ড সেট করার পর আপনার সামনে আপনার ভোটার আইডি কার্ডের সকল ইনফরমেশন শো করবে। এখন আপনি নিচে ডাউনলোড বাটন দেখতে পাবেন। এখন ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করার জন্য ‘ডাউনলোড’ বাটনে ক্লিক করুন। তাহলে আপনার ফোনে ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড হয়ে যাবে। 

ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করার নিয়ম

ভোটার আইডি কার্ডটি ডাউনলোড হওয়ার পর যেকোন কম্পিউটার দোকান থেকে সেটি প্রিন্ট করে নিন এবং নিজেস্ব যেকোন প্রয়োজনে ব্যবহার করুন। 

আশা করি, আর্টিকেলটি পড়ে আপনি জানতে পেরেছেন কিভাবে হাতে থাকা স্মার্টফোন ব্যবহার করে ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করবেন। এরকম আরোও গুরুত্বপূর্ণ কনটেন্ট পেতে চোখ রাখুন আমাদের ওয়েবসাইটে। ধন্যবাদ!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *