বিকাশ নাম্বার পরিবর্তন করার নিয়ম ২০২৪ | How to change Bkash number

বিকাশ নাম্বার পরিবর্তন করার নিয়ম A টু Z সম্পর্কে আলোচনা করব আজকের পোস্টে। তাই ধৈর্য ধরে সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়ার জন্য অনুরোধ রইল। দেশের জনপ্রিয় মোবাইল ব্যাংক গুলোর অন্যতম বিকাশ। সাম্প্রতি বিকাশ তাদের অ্যাপে নতুন আপডেট নিয়ে এসেছে। এখন থেকে যে কেউ চাইলে খুব সহজে বিকাশ নাম্বার পরিবর্তন করতে পারবে। 

 

বিকাশ নাম্বার পরিবর্তন 

আপনি হয়তো জেনে থাকবেন এখন শুধু দেশে নয় বিদেশ থেকে ও বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারবেন এবং নাম্বার পরিবর্তন করতে পারবেন। আপনি যদি দেশের বাহিরে থাকেন। যেমন:

  • সৌদি আরব
  • সিঙ্গাপুর
  • মালয়েশিয়া কিংবা 
  • জাপান ইত্যাদি 

অর্থাৎ আপনি যদি বাংলাদেশের বাহিরে যে কোনো দেশে অবস্থান করে থাকেন। তাহলে যে দেশে অবস্থান করছেন সেই দেশের নাম্বার দিয়ে এখন আপনি বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারবেন এবং বিকাশ app মাধ্যমে আপনি

  • সেন্ড মানি
  • মোবাইল রিচার্জ এবং
  • রেমিটেন্স উইথড্র করতে পারবেন

যেহেতু, বাংলাদেশর অনেকেই দেশের বাহিরে থাকেন। সেই জন্য বিকাশ কম্পানি বিকাশ app একটি নতুন অপশন দিয়েছে। আর তা হলো বিকাশ নাম্বার পরিবর্তন। যেমন: আপনি যদি বাংলাদেশে থাকাকালীন বিকাশ একাউন্ট খুলে থাকেন এখন দেশের বাহিরে চলে গেছেন। সেখান যাওয়ার পর আপনি আবার আপনার পুরনো বিকাশ একাউন্টটি ব্যবহার করতে চান। তাহলে আপনাকে বিকাশ নাম্বার পরিবর্তন করতে হবে।

আরোও পড়ুন: বিদেশ থেকে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম

আবার আপনি যদি দেশের বাহিরে অবস্থানকালীন বিকাশ একাউন্ট খুলে থাকেন। তাহলে দেশে ফিরে আসার পর বিকাশ নাম্বার পরিবর্তন করে বিদেশি নাম্বার এর স্থলে বাংলাদেশি নন বিকাশ নম্বর যুক্ত করতে পারবেন। 

 

বিকাশ নাম্বার পরিবর্তন প্রক্রিয়া 

আপনি যদি আপনার বিকাশ নাম্বার পরিবর্তন করতে চান তাহলে প্রথমে আপনার মোবাইল ফোন অথবা কম্পিউটারে ডাট সংযোগটি চালু করুন। তারপর গুগল প্লেস্টোর থেকে বিকাশ অ্যাপটি ইন্সটল করে নিন এবং সেটি ওপেন করুন। তাহলে আপনার সামনে দুটো অপশন চলে আসবে।যেমন: 

  • লগইন/ রেজিস্ট্রেশন
  • বিকাশ নাম্বার পরিবর্তন

এখন আপনি যেহেতু বিকাশ নাম্বার পরিবর্তন করবেন তাই ‘ বিকাশ নাম্বার পরিবর্তন অপশনে ক্লিক করুন’। তাহলে আপনার সামনে একটি পেইজ চলে আসবে। সেখান থেকে ‘এগিয়ে যান’ অপশনে ক্লিক করুন। তাহলে আপনাকে পরবর্তী অপশনে নিয়ে যাবে। সেখান থেকে দেশের কোড নির্বাচন করতে বলা হবে সেটি নির্বাচন করুন। 

বিকাশ নাম্বার পরিবর্তন নিয়ম

অর্থাৎ আপনি যে দেশের নাম্বার দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খুলেছেন সেই দেশটি সিলেক্ট করুন। উদাহরণ স্বরুপ, আপনি সিঙ্গাপুর থেকে বিকাশ একাউন্ট খুলেছেন। এখন সিঙ্গাপুরের নাম্বার থেকে কিভাবে বাংলাদেশের নম্বরে transfer করতে হবে সেটি দেখবো। এখন আপনি দেশের কোড হিসেবে সিঙ্গাপুর সিলেক্ট করুন। সিঙ্গাপুর সিলেক্ট করার পরে আপনাকে পরবর্তী ধাপে নিয়ে যাবে। সেখান সিঙ্গাপুরের মোবাইল নম্বরটি দিয়ে দিন এবং ‘পরবর্তী’ অপশনে ক্লিক করুন।

আরোও পড়ুন: বিকাশ এজেন্ট একাউন্ট নেওয়ার উপায় ও প্রতি মাসে ইনকাম ২০ থেক ৫০ হাজার টাককা

তাহলে ‘আপডেট করতে আপনার নতুন নাম্বার দিন’ নামে একটি অপশন দেখতে পাবেন। এখন নিচে লক্ষ্য করলে দেখতে পাবেন দেশের কোড অপশনে অটো বাংলাদেশ সিলেক্ট হয়ে যাবে। এখন নতুন মোবাইল নাম্বার দিন অপশনে আপনার নতুন মোবাইল নাম্বারটি দিয়ে দিন। মনে রাখবেন, যে মোবাইল নাম্বারে বিকাশ একাউন্ট খোলা আছে সেই নাম্বারে বিকাশ একাউন্টটি 

transfer করতে পারবেন না। তাই অব্যশই একটি নতুন মোবাইল নাম্বার ব্যবহার করুন। আপনার নতুন মোবাইল নাম্বারটি দেওয়া হয়ে গেলে ‘পরবর্তী’ অপশনে ক্লিক করুন। 

বিকাশ নাম্বার পরিবর্তন ২০২৪

এখন আপনার দেওয়া মোবাইল নাম্বারে একটি ভেরিফিকেশন কোড চলে আসবে। এখন আপনি just allow অপশনে ক্লিক করলে অটোমেটিক সেট হয়ে যাবে। তারপরে আপনি ‘নিশ্চিত করুন’ অপশনে ক্লিক করুন। তাহলে আপনাকে পরবর্তী অপশনে নিয়ে যাবে। সেখান আপনাকে দেশ ত্যাগ অথবা দেশে ফিরে আসার প্রমাণ পত্র দাখিল করতে হবে। 

এখন ‘স্যাম্পল’ অপশনে ক্লিক করে দেখে নিন কি ধরনের ডকুমেন্ট আপলোড করতে হবে। এখনে মূলত আপনার পাসপোর্টের ভিতরে Entry এবং Exist সিল দেওয়া পেইজের ছবি আপলোড করতে হবে। এখন ‘ছবি তুলতে ট্যাপ করুন’ অপশনে ক্লিক করে পাসপোর্টের সেই পেইজের একটি ক্লিয়ার ছবি তুলে নিন তারপর পরবর্তী বাটনে ক্লিক করুন। 

বিকাশ নাম্বার পরিবর্তন প্রক্রিয়া

পরবর্তী অপশনে ক্লিক করার সাথে সাথে আপনার মোবাইল ফোনের ক্যামেরা ওপেন হয়ে যাবে। এখান স্পষ্টভাবে আপনার জাতীয় পরিচয়পত্রের Front part স্ক্যান করে একটি ছবি তুলে নিন এবং submit অপশনে ক্লিক করুন। তারপর আবার ও জাতীয় পরিচয়পত্রের Back part স্ক্যান করে submit অপশনে ক্লিক করুন।তাহলে আপনার পরবর্তী অপশনে নিয়ে যাবে সেখান ছবি তুলুন অপশন ক্লিক করুন।

তাহলে আপনার মোবাইল ফোনের ক্যামেরা ওপেন হয়ে যাবে। এখন আপনি আপনার একটি ছবি তুলে নিন। তারপরে ছবিটি যখন submit করবেন তখন আপনার কিছু তথ্য দেওয়া লাগতে পারে। এখন আপনার তথ্য গুলো সঠিক আছে কিনা একবার চেক করে নিন। যদি ঠিক থাকে তাহলে ‘সম্মতি’ অপশনে ক্লিক করুন। তাহলে আপনাকে ভেরিফিকেশন অপশনে নিয়ে যাবে। এখন আপনার মোবাইল নাম্বারে একটি SMS চলে আসবে।

নতুন বিকাশ পিস সেট করুন

তারপর ‘আপনি নতুন পিন সেট করুন’ ক্লিক করুন। তারপর ‘৫ অক্ষরের নতুন পিন সেট করুন’ অপশন পেয়ে যাবেন সেখানে আপনার বিকাশের পিনটি সেট করুন। তাহলে আপনার বিকাশ একাউন্টটি বাংলাদেশি নাম্বারে transfer হয়ে যাবে। এই পদ্ধতিতে আপনি দেশের বাহিরে গিয়ে ও বাংলাদেশি নাম্বার থেকে বিকাশ একাউন্ট transfer করতে পারবেন এবং দেশের বাহিরে নাম্বারে বিকাশ একাউন্টি transfer করতে পারবেন।

আশা করি আর্টিকেলটি পড়ে আপনি বিকাশ নাম্বার পরিবর্তন করার নিয়ম সম্পর্কে জানতে পেরেছেন। এরকম আরোও গুরুত্বপূর্ণ কনটেন্ট পেতে চোখ রাখুন বঙ্গভাষা ওয়েবসাইটে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1 Comment